বিশেষ খবর

শিক্ষার প্রতিটি স্তরে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে -রাষ্ট্রপতি

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ
img

শিক্ষার প্রতিটি স্তরে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে বলে মত দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। সম্প্রতি খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য আবদুল হামিদ বলেন, পাঠ্যপুস্তকভিত্তিক শিক্ষা ও সনদ দেয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্য নয়। বরং মেধাবিকাশ, উন্মুক্ত চিন্তা-চেতনার উন্মেষ, বুদ্ধিভিত্তিক চর্চা ও প্রয়োগের শ্রেষ্ঠ কেন্দ্র হলো বিশ্ববিদ্যালয়। নতুন জ্ঞান সৃষ্টি এবং গবেষণা ও সৃজনশীল কর্মকা-ে যাতে শিক্ষার্থীরা সম্পৃক্ত হতে পারে তার দ্বার উন্মোচন করাই হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৃত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।
জাতি গঠনে প্রকৌশল শিক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি শিক্ষা একটি জনগোষ্ঠীকে জনসম্পদে পরিণত করে। প্রকৌশলীদের মেধা, মনন ও সৃজনশীল চিন্তা থেকে বেরিয়ে আসে টেকসই উন্নয়নের রূপরেখা।
স্নাতকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশ তোমাদের কাছ থেকে অনেক কিছু প্রত্যাশা করে। তোমাদের হাতের মুঠোয় রয়েছে সমাজ বদলের নানা অনুষঙ্গ। তোমরা তোমাদের সেবা, সততা, নিষ্ঠা ও দেশপ্রেম দিয়ে জাতিকে উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেবে এবং বিশ্বসভায় উন্নত দেশ হিসেবে নিজ মাতৃভূমিকে প্রতিষ্ঠা করবে।
অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তা ছিলেন বরেণ্য শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলী আসগর। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান ও কুয়েট’র উপাচার্য ড. মুহাম্মদ আলমগীর।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ